রশিদ নগরে মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক মফিজ মিয়া’র নাতি জায়েদ আকবর সড়কের নাম ফলক ভেঙ্গে অন্যের নামে নামকরণ


Montasir Islam Chy Fahim প্রকাশের সময় : এপ্রিল ১৩, ২০২১, ১:৪৪ পূর্বাহ্ন /
রশিদ নগরে মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক মফিজ মিয়া’র নাতি জায়েদ আকবর সড়কের নাম ফলক ভেঙ্গে অন্যের নামে নামকরণ

বার্তা পরিবেশকঃ
মরহুম জায়েদ আকবর এর নাম ফলক ভেঙ্গে মৌঃ আব্দুল গণির নামে সড়কের নামকরণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে৷
ঘটনা ঘটেছে রামু উপজেলা রশিদ নগর ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ড়ের পানিরছড়া এলাকায়।

এলাকাবাসী সুত্রে জানা গেছে, ২০০১ সালে পানিরছড়া গ্যারেজ হতে নাছিরাপাড়া সড়কের নামকরণ করা হয় মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক ও বৃহত্তর জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান শেখ মফিজুর রহমান চৌধুরীর নাতি মরহুম শফিউল আকবর এর মেঝ ছেলে মরহুম জায়েদ আকবরের নামে।

এদিকে গত শুক্রবার ( ৯ এপ্রিল) সড়কটির নাম বদল করে পানিরছড়া গ্যারেজ হতে নাছিরাপাড়া এলাকায় এলজিইড়ি বাস্তবায়নে মৌঃ আবদুল গণি সড়ক নাম করণ করে উদ্বোধন করে কক্সবাজার -০৩ ( সদর রামু) আসনের সাংসদ আলহাজ্ব সায়মুম সরওয়ার কমল। তবে সাংসদ আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল এই উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আসেননি বলে জানান স্থানীয়রা।
তিনি আসলেও স্থানীয় চেয়ারম্যান এমডি শাহ আলম এমপি’র নাম ব্যবহার করে উদ্বোধনী ফলক করে ফেলেছে বলে জানা গেছে।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত দেখানো হয়েছে রশিদ নগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এমডি শাহ আলম, ও ৬ নং ওয়ার্ড সদস্য আবু শামাকে।

ইউপি সদস্য আবু শামা জানান, সেদিন এমপি মহোদয় আসেননি। তবে এটি মরহুম জায়েদ আকবর এর নামে নাম করণ ছিল তা আমি জানতাম। আমি চেয়ারম্যান সাহেবকে প্রশ্ন করেছিলাম কেন নাম পরিবর্তন করা হয়েছে? তিনি বলেছেন এমপি সাহেব বলেছে বলে নাম পরিবর্তন করা হয়েছে, এতে আমার হাত নেই।

এদিকে ৭নং ইউপি সদস্য বজল আহমদ জানান, এই সড়কটি মরহুম জায়েদ আকবর এর নামে ছিল তা আমি জানি। কিন্তু হঠাৎ নাম পরিবর্তন করা হয়েছে তা আমাকে জানানো হয়নি। এটি চেয়ারম্যান নিজে লাগিয়ে দিয়েছে এমপি আসেনি।

স্থানীয় নুরুচ্ছফা কান্না জড়িত কন্ঠে প্রতিবেদককে জানান, মরহুম জায়েদ আকবর ভালো ছেলে ছিলেন। উনার নামে সড়কটি নামকরণ করা হয়েছিল। কিন্তু তার ফলকটি ভেঙ্গে মৌঃ আবদুল গণির নামে নাম করণ করা হয়েছে যা অত্যান্ত দুঃখজনক।

স্থানীয় শহীদুল জানান, ২০০১ সালে মরহুম জায়েদ আকবর সড়ক নামকরণ করেছিল এলাকাবাসি। কিন্তু স্থানীয় কিছ কুচক্রী মহল মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের শক্তিকে কমিয়ে দিতে নাম বদল করা হয়েছে এমনিট অভিযোগ করে বলেন।

রামু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রণয় চাকমা জানান, এব্যাপারে আমি অবগত ছিলাম না। যদি এমন হয়ে থাকে তবে আমি এলজিইডির সাথে কথা বলে ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

এদিকে রশিদ নগর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এমডি শাহ আলম এর সাথে কথা বলতে বেশ কয়েকবার ফোন করা হলেও তিনি ফোন ধরেননি।
কক্সবাজার এলজিইড়ি নির্বাহী প্রকৌশলী আনিসুর রহমানকে ফোন করা হলেও তিনিও ফোন ধরেননি।

 

কক্সমর্নিং -এফ