করোনায় না ফেরার দেশে কবরী


coxmorning প্রকাশের সময় : এপ্রিল ১৭, ২০২১, ৫:০৫ পূর্বাহ্ন /
করোনায় না ফেরার দেশে কবরী

বিশেষ প্রতিবেদক :  ফুসফুসের সংক্রমণ নিয়ে হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন থাকা বরেণ্য অভিনয়শিল্পী ও সাবেক সংসদ সদস্য সারাহ বেগম কবরী মারা গেছেন ( ইন্না লিল্লাহি ওয়াইন্নইলাহি রাজিউন)। ১২টা ২০ মিনিটে  রাজধানীর শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালে তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন।

করোনা আক্রান্ত কবরী গত এক সপ্তাহ ধরে রাজধানীর মহাখালীর শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

এর আগে করোনা উপসর্গ থাকায় নমুনা পরীক্ষা করলে ৫ এপ্রিল কবরী জানতে পারেন তার শরীরে করোনাভাইরাস বাসা বেঁধেছে।

এরপর সেদিন রাতেই তাকে রাজধানীর কুর্মিটোলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কিন্তু শারীরিক অবস্থার কোনো উন্নতি ঘটেনি। বুধবার রাতে শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে আইসিইউতে নেওয়ার প্রয়োজন পড়ে। কিন্তু কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে কোনো আইসিইউ বেড খালি না থাকায় কর্তৃপক্ষ সেটা দিতে পারছিলেন না। এরপর বৃহস্পতিবার দুপুরে তাকে মহাখালীর শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালের আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়েছে।

সুভাষ দত্তের পরিচালনায় ১৯৬৪ সালে ‘সুতারাং’ সিনেমা দিয়ে চলচ্চিত্রে নাম লেখান নারায়ণগঞ্জের মেয়ে কবরী। এরপর ‘বাহানা’, ‘তিতাস একটি নদীর নাম’, ‘রংবাজ’, ‘সারেং বউ’, ‘সুজন সখী’সহ অসংখ্য কালজয়ী সিনেমা উপহার দিয়েছেন তিনি।

সিনেমা প্রযোজনাও করেছেন। পরিচালক হিসেবেও তৈরি করেছেন সিনেমা। দীর্ঘ ১৪ বছর পর হাত দিয়েছেন দ্বিতীয় সিনেমা নির্মাণে। ‘এই তুমি সেই তুমি’ নামের ছবিটি পরিচালনার পাশাপাশি এর কাহিনি, চিত্রনাট্য ও সংলাপ রচনা করেছেন কবরী। সরকারি অনুদানের এ ছবিতে অভিনয়ও করবেন তিনি। কবরী পরিচালিত প্রথম সিনেমার নাম ‘আয়না’। এই কিংবদন্তি চলচ্চিত্র তারকা আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গেও যুক্ত ছিলেন।