লাদাখে ভারতীয় সেনার হাতে চীনা সেনা আটক

প্রকাশিত: ১১:২৭ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২০, ২০২০

ডেস্ক রিপোর্ট : সীমান্ত নিয়ে চীনের সঙ্গে টানাপড়েনের মধ্যেই সোমবার লাদাখে ভারতীয় সেনার হাতে ধরা পড়লেন এক চীনা সেনা। ধৃত ওই সেনার নাম ওয়াং ইয়া লং। তিনি পিএলএ-র এক জন কর্পোরাল বলে জানিয়েছে সেনা। সেনার এক সূত্রকে উদ্ধৃত করে সংবাদ সংস্থা এএনআই জানিয়েছে, চুমার-ডেমচক এলাকা থেকে ওই চীনা সেনাকে এ দিন আটক করা হয়েছে। তার কাছ থেকে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ নথি উদ্ধার হয়েছে। প্রাথমিক ভাবে সেনা মনে করছে, অনিচ্ছাকৃত ভাবেই ভারতীয় ভূখণ্ডে ঢুকে পড়েছিলেন ওই চীনা সেনা। পিএলএ-র ওই সেনাকে অক্সিজেন, খাবার এবং গরম পোশাক দেওয়া হয়েছে। শুধু তাই নয়, তার চিকিত্সার ব্যবস্থাও করা হয়েছে বলে জানিয়েছে সেনা।সেনার তরফে এক বিবৃতি জারি করে বলা হয়েছে, “প্রোটোকল মেনে চুশূল-মোল্ডো পয়েন্টে পিপলস লিবারেশন আর্মি (পিএলএ)-র আটক সেনাকে চীনের হাতে তুলে দেওয়া হবে।” নিখোঁজ সেনার অবস্থান জানতে চেয়ে চীনের পক্ষ থেকে আর্জি জানানো হয়েছে বলেও সেনা সূত্রের দাবি।গত মে থেকেই লাদাখে প্রকৃত সীমান্তরেখায় চীন এবং ভারতীয় সেনা পরস্পরের মুখোমুখি হয়েছে। গলওয়ানে দু’দেশের সেনার মধ্যে সংঘর্ষও হয়। সেই সংঘর্ষে মৃত্যু হয় ২০ ভারতীয় সেনার। সেই ঘটনার পর পরিস্থিতি আরও উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। পরিস্থিতি সামলাতে দু’দেশের মধ্যে সেনা ও কূটনৈতিক পর্যায়ে দফায় দফায় বৈঠক হয়। কিন্তু এখনও পর্যন্ত এ বিষয়ে কোনও চূড়ান্ত সমাধান সূত্র মেলেনি।গত সেপ্টেম্বরে পথ হারিয়ে যাওয়া তিন চীনা নাগরিককে উদ্ধার করে তাদের নিরাপদে ফেরত পাঠিয়েছিল ভারতীয় সেনা। সাড়ে ১৭ হাজার ফুট উচ্চতায় উত্তর সিকিমের পাহাড়ি এলাকায় দিকভ্রষ্ট হয়েছিলেন চীনা নাগরিকদের একটি দল। দলে দু’জন পুরুষ এবং এক জন মহিলা ছিলেন। পাহাড়ি এলাকার দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে দিকভ্রষ্ট হন ওই তিন চীনা নাগরিক। হিমশীতল ঠান্ডায় অসুস্থ হয়ে পড়ায় ওই তিন জনকে খাবার, গরম পোশাক এবং অক্সিজেন সিলিন্ডার দিয়ে সহযোগিতা করে ভারতীয় সেনা।