বঙ্গবন্ধুর ওপর লেখা শতাধিক বই সুদানের বিশ্ববিদ্যালয়ে

প্রকাশিত: ১:০৯ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২০, ২০২০

বিশেষ প্রিতিনিধি :  সুদানের দারফুর প্রদেশের এল ফাশের বিশ্ববিদ্যালয়ে বাংলাদেশ ফর্মড পুলিশ ইউনিটের পক্ষ থেকে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ওপর লেখা ইংরেজি ভাষায় অনূদিত শতাধিক বই লাইব্রেরিতে প্রদান করা হয়েছে। এই বই প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উনামিডের পুলিশ চিফ অব স্টাফ জেনারেল আহমাদো মান্না, বিশেষ অতিথি ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর ড. আবু বকর মোহামেদ জুমা সিয়াম ও স্ট্যাট লিয়াজো অফিসার (উত্তর দারফুর) কর্নেল আদোল ফিনা।

জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনের ব্যানএফপিইউ এবং এল ফাশের বিশ্ববিদ্যালয় ইংরেজি বিভাগের যৌথ উদ্যোগে এক সংক্ষিপ্ত অনুষ্ঠানের মাধ্যমে শতাধিক বই বিশ্ববিদ্যালয়ের লাইব্রেরিতে শিক্ষার্থীদের জন্য প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ড. আবু বকর জাতির পিতার উপর লেখা বই প্রদানের জন্য বাংলাদেশ পুলিশকে ধন্যবাদ জানান।
তিনি বলেন, এই বইগুলো শুধুমাত্র শিক্ষার্থীদের বাংলাদেশের জাতির পিতা সম্পর্কে জ্ঞান অর্জনের সুযোগ দেবে না বরং সুদান ও বাংলাদেশের মধ্যে ভাতৃত্ববোধ বৃদ্ধি করবে। এর আগে ব্যানএফপিইউ কমান্ডার মোহাম্মদ আব্দুল হালিম কর্তৃক মহান মুক্তিযুদ্ধে ও বাংলাদেশ সৃষ্টিতে জাতির পিতার অবদানের কথাকে তিনি শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন।

উনামিড চিফ অব স্টাফ জেনারেল আহমাদো মান্নাহ বই প্রদান অনুষ্ঠানকে ঐতিহাসিক দিন বলে আখ্যা দেন। তিনি বলেন, অতীতে কোনো দেশের প্রতিনিধি দারফুরের কোনো বিশ্ববিদ্যালয়ে বই প্রদান করেন নি। বাংলাদেশ পুলিশের একটি ইউনিট শান্তিরক্ষা মিশনে এসে শান্তিরক্ষা প্রতিষ্ঠার কাজের পাশাপাশি একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের জন্য বই প্রদানের দিনটি মাইলফলক হিসাবে উনামিডের ইতিহাসে থাকবে বলে উল্লেখ করেন।
ব্যানএফপিইউ কমান্ডার মোহাম্মদ আব্দুল হালিম সূচনা বক্তব্যে জাতির পিতা উপর লেখা বইগুলোর উপর সংক্ষিপ্ত ধারণা প্রদান করেন। তিনি বলেন, আমরা মিশন এরিয়াতে ইতিমধ্যে দারফুরের নিয়ালা বিশ্ববিদ্যালয় ও খার্তুম বিশ্ববিদ্যালয়ে জাতির পিতাকে পরিচিতি করার উদ্দেশ্যে শতাধিক বই প্রদান করি।

তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মানেই বাংলাদেশ, উনাকে পরিচয় করা মানেই বাংলাদেশকে পরিচয় করে দেয়া।
বাংলাদেশ ফর্মড পুলিশ ইউনিট সুদানের যুদ্ধ বিধস্ত প্রদেশ দারফুরে আর্থ সামাজিক উন্নয়নে ব্যাপক ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে। ইতোমধ্যে এই ইউনিটের কমান্ডারের প্রচেষ্টায় বৃক্ষ রোপণ, স্কুলগুলোতে শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ, অবহেলিত বাস্তুচ্যূত নারীদের বিভিন্ন আয়মূলক কর্মশালা প্রদান, সুদান গস পুলিশকে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে।

বই প্রদান অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের আর্টস ফ্যাকাল্টির ডিন ও ইংরেজি বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ইব্রাহিম ইয়াহিসা আব্দেল রাসুল, অধ্যাপক সুলাইমান আদম মুসা, অধ্যাপক ফাইসাল ব্রিমাসহ উনামিড মিশনের অন্যান্য কর্মকর্তারা।