ঢাকা, ১৭ই জানুয়ারি, ২০২১ ইং

যাবজ্জীবন সাজার মেয়াদ কত বছর, রায় ১ ডিসেম্বর

প্রকাশিত: ৭:৪৩ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৫, ২০২০

যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামকিে কত বছর কারাভোগ করতে হবে সে বষিয়ে আগামী ১ ডসিম্বের রায় দবেনে সুপ্রমি র্কোটরে আপলি বভিাগ। প্রধান বচিারপতি সয়ৈদ মাহমুদ হোসনেরে নতেৃত্বাধীন আপলি বভিাগ গতকাল মঙ্গলবার রায়রে দনি র্ধায করে আদশে দনে।

যাবজ্জীবন সাজার ময়োদ নয়িে দশেরে প্রচলতি আইনে আছে এক রকম, কন্তিু দশেরে র্সবোচ্চ আদালত আপলি বভিাগ থকেে এ বষিয়ে দুই রকম রায় দওেয়া হয়ছে।ে ফলে এ নয়িে কারা র্কতৃপক্ষ ও সাজাপ্রাপ্ত আসামরিা বভ্রিান্ততিে রয়ছেনে। যাবজ্জীবন কারাদণ্ড র্অথ আমৃত্যু কারাদণ্ড, নাকি ৩০ বছর কারাদণ্ড হব,ে নাকি অন্য কোনো সদ্ধিান্ত আসব,ে তা জানা যাবে এ রায়রে মধ্য দয়ি।ে

গতকাল আপলি বভিাগে একটি রভিউি আবদেনরে শুনানি নয়িে রায় ঘোষণার দনি র্ধায করে আদশে দওেয়া হয়। শুনানতিে আসামপিক্ষে আইনজীবী ছলিনে অ্যাডভোকটে খন্দকার মাহবুব হোসনে ও মোহাম্মদ শশিরি মনরি। রাষ্ট্রপক্ষে ছলিনে অ্যার্টনি জনোরলে এ এম আমনি উদ্দনি ও ডপেুটি অ্যার্টনি জনোরলে বশ্বিজৎি দবেনাথ।

২০০১ সালে সাভারে জামান নামরে এক ব্যক্তকিে গুলি করে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় ২০০৩ সালে তনিজনকে মৃত্যুদণ্ড দনে দ্রুত বচিার ট্রাইব্যুনাল। হাইর্কোটে আপলিরে পর বচিারকি আদালতরে দণ্ড বহাল থাক।ে এর বরিুদ্ধে আপলিরে পর ২০১৭ সালরে ১৪ ফব্রেুয়ারি আসামদিরে মৃত্যুদণ্ড মওকুফ করে আমৃত্যু কারাদণ্ড দনে র্সবোচ্চ আদালত। মামলার ৯২ পৃষ্ঠার র্পূণাঙ্গ রায় ওই বছররে ২৪ এপ্রলি সুপ্রমি র্কোটরে ওয়বেসাইটে প্রকাশতি হয়। রায়ে বলা হয়, যাবজ্জীবন মানে আমৃত্যু কারাদণ্ড। রায়ে আরো বলা হয়, যদি হাইর্কোট বভিাগ বা এই আদালত (আপলি বভিাগ) মৃত্যুদণ্ডরে সাজা কময়িে যাবজ্জীবন করনে তখন এবং নর্দিশে দনে যে আসামি স্বাভাবকি মৃত্যু র্পযন্ত এই কারাদণ্ড ভোগ করবনে, তখন এ ধরনরে মামলায় সাজা কমানোর আবদেন গ্রাহ্য হবে না। আদালতরে এ রায়রে অনুলপিি পাওয়ার পর যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত অপরাপর আসামরি ক্ষত্রেে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নতিে স্বরাষ্ট্রসচবি ও কারা মহাপরর্দিশককে বলা হয়। পরে ওই বছরই আপলি বভিাগরে রায় পুর্নববিচেনার জন্য রভিউি করনে জামান হত্যা মামলার আসামি আতাউর রহমান মৃধা।

এ রভিউি আবদেনরে ওপর শুনানকিালে আপলি বভিাগ উভয় পক্ষরে আইনজীবী ছাড়াও অ্যামকিাস কউিরি (আদালতরে বন্ধু) হসিবেে সুপ্রমি র্কোটরে জ্যষ্ঠে চার আইনজীবী সাবকে অ্যার্টনি জনোরলে এ এফ হাসান আরফি, ফৌজদারি আইন বশিষেজ্ঞ অ্যাডভোকটে আবদুর রজোক খান, সুপ্রমি র্কোট আইনজীবী সমতিরি সাবকে সভাপতি ব্যারস্টিার রোকনউদ্দনি মাহমুদ ও সমতিরি র্বতমান সভাপতি অ্যাডভোকটে এ এম আমনি উদ্দনিরে যুক্তি শোননে। শুনানি সম্পন্ন হওয়ার পর যকেোনো দনি রায় ঘোষণার জন্য অপক্ষেমাণ (সএিভ)ি রাখার আদশে দওেয়া হয় গত বছর ১১ জুলাই। গতকাল ওই রভিউি আবদেনরে ওপর আবার শুনানি নয়িে আপলি বভিাগ রায়রে দনি নর্ধিারণ করনে।

প্রাপ্ত তথ্যানুযায়ী, বাংলাদশেরে দণ্ডবধিরি ৫৭ ধারা, ফৌজদারি র্কাযবধিরি ৩৫(ক) ধারা এবং কারাবধিরি ৫৯ নম্বর ধারা অনুযায়ী যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হবে ৩০ বছর। রয়োত শষেে যা দাঁড়ায় সাড়ে ২২ বছর।

র্সূয বগেম হত্যা মামলায় রোকয়ো বগেমকে নম্নি আদালত ও হাইর্কোটরে দওেয়া যাবজ্জীবন কারাদণ্ড বহাল রখেে ২০১৩ সালরে ৩ এপ্রলি আপলি বভিাগ রায় দনে। বচিারপতি নাজমুন আরা সুলতানার নতেৃত্বে আপলি বভিাগরে দওেয়া রায়ে বলা হয়, যাবজ্জীবন কারাদণ্ড র্অথ সাড়ে ২২ বছর কারাদণ্ড (১৯ বএিলস,ি পৃষ্ঠা ২০৪)। আপলি বভিাগরে এ রায় ও আইন বলবৎ থাকাবস্থায় সাবকে প্রধান বচিারপতি সুরন্দ্রে কুমার সনিহার নতেৃত্বে আপলি বভিাগ সাভাররে জামান হত্যা মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি আতাউর রহমানরে সাজা কময়িে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দয়িে ২০১৭ সালরে ১৪ ফব্রেুয়ারি রায় ঘোষণা করনে। ওই রায়ে বলা হয়, যাবজ্জীবন কারাদণ্ড র্অথ আমৃত্যু কারাদণ্ড।

ভারতে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হসিবেে আমৃত্যু কারাদণ্ডরে বধিান করে আইন করা হয়ছে।ে ভারতরে মতো যদি পরর্বিতন করতে হয় তবে ফৌজদারি র্কাযবধিরি ৩৫(ক), ৪০১ ও ৪০২ ধারা এবং দণ্ডবধিরি ৫৫ ধারা এবং কারাবধিরি ৫৯ নম্বর ধারা সংশোধন করার প্রয়োজন হতে পার।ে

আইনজীবীরা বলছনে, জামান হত্যা মামলায় আতাউর রহমানসহ আসামদিরে করা রভিউি আবদেনে নতুন সদ্ধিান্ত দবেনে প্রধান বচিারপতি সয়ৈদ মাহমুদ হোসনেরে নতেৃত্বে আপলি বভিাগ। এই রায়রে মধ্য দয়িে বভ্রিান্তরি অবসান ঘটবে বলে মনে করনে তাঁরা।

  • এই বিভাগের সর্বশেষ